ফিজিওথেরাপি সেন্টার, আপত্তিকর যুবত-যুবতী আটক!

বালিয়া নফরচন্দ্র বালিকা বিদ্যালয়ের পেছনে এক নারীর কাছ থেকে বাড়ি ভাড়া নিয়েছিলেন রাকেশ ঘরামি নামে এক ব্যক্তি। তারপর গত নভেম্বর থেকেই সেখানে ফিজিওথেরাপি সেন্টার পরিচালনার নামে অনৈতিক কর্মকাণ্ড চলছিল। গত শনিবার ফিজিওথেরাফি সেন্টারটিতে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকায় ১৪ নারী-পুরুষকে আটক করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর থানার অন্তর্গত গড়িয়া স্টেশন রোড এলাকায়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা যায়, বাড়িটি ভাড়া নেয়ার পর থেকেই বহিরাগত বেশকিছু পুরুষ ও নারী যাতায়াত করতেন। প্রথমে স্থানীয় লোকজন এ বিষয়ে মাথা না ঘামালেও গত কয়েকদিন ধরে এই বাড়িতে বহিরাগত নারী-পুরুষদের যাতায়াত বেড়েই চলছিল।

যা দেখে সন্দেহ দানা বাঁধে। শনিবার দুপুরে ওই বাড়িতে বহিরাগত নারী ও পুরুষদের আসতে দেখে এলাকার লোকজন বাড়িটির ওপর নজরদারি চালায়। এক পর্যায়ে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে নগ্ন অবস্থায় পাওয়া যায় নয় নারী ও পাঁচ পুরুষকে। তাদেরকে আটকে রেখে স্থানীয়রাই খবর দেন সোনারপুর থানায়।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। বাড়ির মালিককেও আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *