অসুস্থ হয়ে দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি সোনিয়া গান্ধী

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি সোনিয়া গান্ধী অসুস্থ হয়ে দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অসুস্থ হওয়ার আগ মুহূর্তে তিনি হিমাচল প্রদেশের রাজধানী সিমলায় অবস্থান করছিলেন। শুক্রবার সকালে বিমানে তাকে দিল্লিতে আনা হয়।

ভারতের গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, মেয়ে প্রিয়াংকা গান্ধীকে সঙ্গে নিয়ে বুধবার সিমলা থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে ছারাব্রা গ্রামে ছিলেন সোনিয়া। চণ্ডীগড় থেকে সড়কপথে গিয়ে সিমলার ছারাব্রার ওয়াইল্ডফ্লাওয়ার হল হোটেলে ওঠেন মা ও মেয়ে। সেখানে প্রিয়াংকার নতুন কটেজ নির্মাণকাজ চলছে। কটেজ নির্মাণের কাজকর্ম দেখে হোটেলে ফিরে সোনিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন।

এরপর তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তাকর্মীরা সিমলার ইন্দিরা গান্ধী মেডিকেল কলেজে (আইজিএমসি) যোগাযোগ করেন। সেখানে সোনিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে বলা হয়। কিন্তু ওই হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে সোনিয়া দিল্লি ফিরে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

আইজিএমসি হাসপাতালের সিনিয়র মেডিকেল সুপার ড. রমেশ চান্দ জানান, ১১টা ৪৫ মিনিটে ফোন করে অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা রাখার কথা বলা হয়। কিন্তু সোনিয়া গান্ধী এখানে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে রাজি হননি। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মেয়েকে নিয়ে সড়কপথে নিজ গাড়িতে চণ্ডীগড়ের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। চণ্ডীগড় পর্যন্ত তাদের সঙ্গী হয় আইজিএমসি হাসপাতালের একটি মেডিকেল টিম। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চণ্ডীগড় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিশেষ বিমানে সোনিয়াকে দিল্লিতে নিয়ে আসা হয়। তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। উচ্চরক্তচাপ আছে তার। এজন্য শ্বাসপ্রশ্বাসে ব্যাঘাত ঘটনায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

গত বছরের অক্টোবরে সিমলায় কটেজ দেখতে গিয়ে একবার অসুস্থ হয়ে পড়েন সোনিয়া। এরপরই কালিয়ানি হেলিপ্যাড গ্রাউন্ড থেকে সোনিয়াকে হেলিকপ্টারে করে দিল্লিতে নেয়া হয়। ছারাব্রায় ৩.৫ বিঘার ওপর গড়ে তোলা হচ্ছে প্রিয়াংকার এই কটেজ। সমতল থেকে ৮ হাজার ফুট উচ্চতায় অবস্থিত এই কটেজের চারদিক পাইন ও সিডার গাছ দিয়ে ঘেরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *