চাকরির অভিজ্ঞতায় লেখা যাবে পতিতাবৃত্তি!

নিউজিল্যান্ড চাকরির বাজারে নতুন এক অভিজ্ঞতা নিয়ে আসছে। নতুন জীবন শুরুর প্রত্যাশা করতে পারেন কিছু কিছু অভিবাসী। এখন থেকে দেশটির ভিসার আবেদনে নতুন একটি অভিজ্ঞতার বর্ণনা জুড়ে দিতে পারবেন তারা।

দেশটির সরকারের নেয়া নতুন একটি পরিকল্পনা অনুযায়ী, দক্ষ যৌনকর্মী এবং এসকর্টে যারা কাজ করেছেন তার ভিসার আবেদনে তাদের কাজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে পয়েন্ট অর্জন করতে পারবেন। এই পয়েন্ট অস্ট্রেলীয়-নিউজিল্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড ক্লাসিফিকেশন অব অকিউপেশন (এএনজেডএসসিও)-এর সামাজিক সাহচর্য দক্ষতা হিসেবে গণ্য করা হবে।

শর্ত পূরণ সাপেক্ষে উচ্চ যোগ্যতাসম্পন্ন যৌন কর্মীরা এএনজেডএসসিও’র দক্ষতা লেভেল ৫ পাবেন। এএনজেডএসসিও’র শর্ত পূরণে যৌন কর্মীকে অবশ্যই মাধ্যমিক শিক্ষার গণ্ডি পার করতে হবে।

এএনজেডএসসিও’র দেয়া লেভেল ৫ অর্জনের পর দক্ষ হিসাবে যৌনকর্মীরা তালিকাভুক্ত হতে পারবেন না। তবে এই তালিকায় যুক্ত হতে হলে প্রত্যেক যৌনকর্মীকে ঘণ্টায় ২৫.৮৭ মার্কিন ডলার আয়ের রেকর্ড থাকতে হবে। যা সপ্তাহে ৪০ ঘণ্টার হিসাবে বছরে ৭৫ হাজার ৭৯৫ নিউজিল্যান্ডের ডলারের সমান।

ভিসার আবেদনকারীকে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের স্বীকৃতি অথবা যৌন ইন্ডাস্ট্রিতে কমপক্ষে তিন বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *