‘তোমার রক্ত চাই, তা দিয়ে আমি গোসল করব’

একটি অনলাইন ডেটিং সাইটে গত বছর এক ছেলের সঙ্গে পরিচয় হয় ৩১ বছর বয়সী জ্যাকেলিনের। সেখান থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রথম প্রথম কিছুদিন ভালোই যাচ্ছিল যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী এই জুটির। দুজনের মধ্যে প্রেম জমেছিল বেশ। একদিন ডেটেও যান তারা। কিন্তু তারপরেই হঠাত্‍‌ ছেলেটির কাছে দুর্বিষহ হয়ে উঠেন জ্যাকেলিন।

ছেলেটি কোথায় যাচ্ছে, কী করছে এসব জানতে সারাদিন হাজার হাজার মেসেজ, ফোনের পর ফোন দিত জ্যাকেলিন। আর সময় মতো উত্তর না পেয়ে আরও ভয়াবহ মেসেজ ও খুনের হুমকিও দিতেন তিনি। পরে প্রেমিকার বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ করেন ওই ছেলে।

ছেলেটির ইনবক্সে টানা ৬৫ হাজার মেসেজ। ছেলেটিকে চরম উত্যক্ত, মানসিক অত্যাচার ও খুনের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে অ্যারিজোনার পুলিশ জ্যাকেলিনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়।

পুলিশ জানান, জ্যাকেলিন ক্লেয়ার অ্যাডেস মিয়ামির বাসিন্দা। তিনি তার প্রেমিককে দিনে ৫০০টি করে এসএমএস পাঠাতেন। সব এসএমএসের উত্তর না পেলে হুমকিও দিতেন। যেমন, ‘তোমার রক্ত চাই। তা দিয়ে আমি গোসল করব।’ সব মিলিয়ে প্রায় ৬৫ হাজার এসএমএস পাঠিয়েছেন জ্যাকেলিন।

এ ছাড়া ৩০ এপ্রিল ছেলেটিকে জ্যাকেলিন একটি এসএমএস পাঠিয়েছিল। তাতে লেখা, ‘আমাকে ছেড়ে যাওয়ার চেষ্টাও করো না। আমি তোমাকে খুন করে ফেলব। আমি খুনি হতে চাইছি না।’ এরপরের এসএমএসেই লিখেছেন, ‘আমার আশা তুমি মরবে। থুতনি থেঁতলে গিয়েছে তোমার, আমি দেখতে পাচ্ছি।’

কারাগারে থাকা অবস্থায় এক ইন্টারভিউতে জ্যাকেলিন বলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম, আমার জীবনসঙ্গী পেয়ে গিয়েছি। আমরা বিয়ে করতাম। কিন্তু যা ঘটল।’

পুলিশ জ্যাকেলিনকে প্রশ্ন করেন, আপনার কি মনে হয় না এটা বাড়াবাড়ি? উত্তরে তিনি বলেন, ‘ভালোবাসা একটি বাড়াবাড়ি ব্যাপার বলেই আমি মনে করি।’

আপনি কি মনে করছেন না, আপনি বিপজ্জনক অবস্থায় আছেন? এই প্রশ্নের উত্তরে জ্যাকেলিন বলেন, ‘না। আমি শুধু তাকে ভালোবাসতে চাই। ও যদি আমায় পছন্দ না করে, তাহলে বাড়ি ফিরে যাব। আবার প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ডকেই ভালোবাসব।’

সূত্র: ডেইলি মেইল 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *