ফেনীতে শাওমির ফোন বিস্ফোরণে কলেজ ছাত্র নিহত

ফেনীতে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ হয়ে স্বপ্নীল মজুমদার (১৭) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ফোনটি শাওমির পোকো এফ ১ ছিল বলে জানা যায়। রোববার বিকেলে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানান নিহতের নানা আবদুর রাজ্জাক। নিহত মজুমদার স্বপ্নীল ঢাকা আইডিয়াল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

অাবির হোসেন নামের  স্বপ্নীল মজুমদারের এক বন্ধু  জানান সে শাওমি ফোন ব্যবহার করতেন  । মাত্র কিছু দিন পূর্বে সে ফোনটি কিনেছে  ।

স্বপ্নীল মজুমদারের নানা আবদুর রাজ্জাক জানান, বাবা সুমন মজুমদারকে নিতে স্বপ্নীল ফেনী শহর তলীর চাড়ীপুর এলাকার আমিন মিয়ার বাড়িতে যায়। শনিবার বিকেলে নানার বাড়িতে মোবাইল ফোন চার্জ দিয়ে ঘুমাতে যায়। এ সময় ঘরের লাইট বন্ধ করতে অন্য একটি সুইচ চাপ দিলে বিকট শব্দে মোবাইল ফোনটি বিস্ফোরিত হয়। এতে পুরো ঘরে আগুন ধরে যায় এবং স্বপ্নীল মজুমদারের শরীরের ৪৫ ভাগ দগ্ধ হয়।

স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আধুনিক ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে পাঠায়। বর্তমানে সেখানেই স্বপ্নীল মজুমদার চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শাওমি ফোন বিস্ফোরণের ঘটনা সম্পর্কে শাওমির থেকে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। এ বিষয় জানতে শাওমির কর্মকর্তার  সাথে যোগাযোগ করা চেষ্টা করা হলেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

এদিকে স্বপ্নীল মজুমদারের এক বন্ধুর পোস্ট থেকে জান যায় তার ব্যবহিত ফোনটি ছিলো শাওমি পোকো এফ১।

ফেনী ফায়ার স্টেশনের ইনচার্জ কবির আহম্মদ জানান, আগুন লাগার কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণেই স্বপ্নীল দগ্ধ হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *