পরপর বিদায় নিলেন সৌম্য-সাকিব

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেওয়া বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে আউট হয়ে ফেরেন তামিম ইকবাল। লিটনের সঙ্গে দারুণ শুরু করলেও রান আউটে কাটা পড়েন তিনি। তবে এক প্রান্তে ঝড়ো শুরু করেন লিটন দাস। অন্য প্রান্তে থাকা সৌম্য সরকার আবার তাকে রেখে ফিরে গেছেন। সর্বশেষ খবর পর্যন্ত বাংলাদেশ ৪.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৬৫ রান তুলেছে।

ক্রিজে আছেন লিটন দাস। তিনি ১৫ বলে ৩৭ রান করে খেলছেন। তার সঙ্গী মুশফিকুর রহিম। সৌম্য সরকার ১০ রান করে ফিরে যান। তারপরে ক্রিজে আসা সাকিব কোন রান করতে পারেননি। ফিরে যাওয়ার আগে তামিম ইকবাল করেন ৮ রান।

এর আগে টস হেরে শুরুতে ব্যাট করে ১৯০ রানে অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তারা শুরুর আট ওভারের মধ্যে শত রান পূর্ণ করে। হাতে তখনও আট উইকেট। কিন্তু পরে মাহমুদুল্লাহ-সাকিব এবং মুস্তাফিজ তাদের আটকে দেওয়ার কাজটা সম্ভব করেছেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ঝড় তোলা লুইস ৩৬ বলে ৮৯ রান করে মাহমুদুল্লাহর বলে বোল্ড হন। পরের বলে ফিরে যান হেটমায়ার। নিজের তৃতীয়তম ওভারে এসে মাহমুদুল্লাহ ফেরার রোভম্যান পাওয়েলকে। এছাড়া শুরুতে শাই হোপকে ফেরানো সাকিব নেন তিন উইকেট। শেষটায় দারুণ বল করা মুস্তাফিজ ফেরান কেমো পল ও নিকোলাস পরান-ব্রাথওয়েটকে।

উইন্ডিজের হয়ে শাই হোপ ১২ বলে ২৩ করে ফিরে গেছেন। তিনে নামা কেমো পল ফেরেন ২ রান করে। উইন্ডিজের হয়ে নিকোলাস পরান ফেরান ২৯ রানে। এছাড়া রোভম্যান পাওয়েল করেন ১৯ রান। দলের হয়ে বল হাতে ৩.২ ওভারে ১৮ রান দেন মাহমুদুল্লাহ। মুস্তাফিজ চার ওভারে ৩৩ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া সাকিব নেন ৩ উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *