গুণে ভরা নীল চা

গ্রিন টি দ্রুত ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। তাই ইদানীংকালে ওজন নিয়ন্ত্রণে অনেকেই গ্রিন টিকে দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় রাখতে পছন্দ করে। গ্রিন টি-র পরে এবার এসেছে ব্লু টি। ব্লু টি শুধু ওজনই কমায় না, রয়েছে আরও গুণাগুণ।

ব্লু টি তৈরি করা হয় অপরাজিতা গাছের পাতা থেকে। নীল রঙের জন্য ব্যবহার করা হয় এই ফুল। ব্লু টির ব্যবহার শুরু হয় মূলত দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলিতে, যার মধ্যে থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম উল্লেখযোগ্য। সেখানে রাতের খাবারের পরে এই পানীয় পান করে অনেকে। লেবুর রস ও মধু যোগে এটি তৈরি করা হয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ব্লু টি হেলথ ড্রিঙ্ক। ‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ ওবেসিটি অ্যান্ড রিলেটেড মেটাবলিক ডিসওর্ডারস’-এর এক সমীক্ষা অনুযায়ী, মোটা হওয়ার সব রকম টিস্যু ও ফ্যাটি লিভার সংক্রান্ত অসুখ হওয়ার থেকে বাঁচায় ব্লু টি।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে দু’বার ব্লু-টি খেলে স্বাভাবিক ভাবেই শরীরের ক্যালোরি বার্ন হয়।ব্লু টি খেলে ফ্যাটি লিভার ভাল থাকে। পেটের কাছে মেদ বাড়ে না। এতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামাটোরি গুণাগুণ যা শরীরের টক্সিফিকেশন রোধ করে।

রোজ ব্লু টি খেলে উদ্বেগ ও মানসিক চাপ কম হয় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। ব্লু টিতে রযেছে অ্যান্টি-গ্লাইসেশন ও ফ্ল্যাভোনয়েড যা ত্বককে মসৃণ রাখে। এটি কাজ করে অ্যান্টি-এজেং হিসেবেও।

ব্লু টি-র পাশাপাশি জনপ্রিয় হয়েছে পার্পেল টি-ও। এটি নতুন কিছুই নয়, ব্লু টি-এর সঙ্গে লেবুর রস মেশালেই তার রং পরিবর্তন হয়ে যায়।

জাগরণএক্সপ্রেস/আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *