আবারও সড়কে পোশাক শ্রমিকরা

আবারও সড়ক অবরোধ করেছে পোশাক শ্রমিকরা। রাজধানীর দারুস সালাম থানাধানী এলাকায় এশিয়া সিনেমা হলের কাছে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছেন কয়েকটি পোশাক কারখানারা শ্রমিকরা। নতুন মজুরি কাঠামোর বাস্তবায়নের দাবিতে গত কয়েকদিনের আন্দোলনে থাকলেও আজ বেতন-ভাতার সমন্বয় ও ওই এলাকায় একটি কারাখানায় দুই পোশাক শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে অভিযোগ এনে রাস্তায় নেমেছেন শ্রমিকরা।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিক রাস্তায় নেমে আসে। এতে ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

মিরপুর-১৪ তে সকাল থেকেই সড়ক অবরোধ করে তারা। সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ চলছে মিরপুর টেকনিক্যাল মোড় এলাকায়ও। এদিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায়ও অবরোধ করার খবর পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, ওই এলাকার ৫টি গার্মেন্টস এর হাজার হাজার শ্রমিক সকালে রাস্তায় নেমে আসে। তারা সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়।

মিরপুর থানার ডিউটি অফিসার এসআই রোকসান জানান, শ্রমিকদের বিক্ষোভের ওখানে পুলিশ রয়েছে। যান চলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা চলছে।
শ্রমিকদের অভিযোগ, নতুন কাঠামোয় বেতন প্রত্যাশা অনুযায়ী পাননি তারা। কারও কারও ক্ষেত্রে বেতন আগের চেয়ে কমে গেছে।
প্রাপ্য বেতনের দাবিতে শ্রমিকরা সড়কে নেমে আসার পর নতুন সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে মজুরি কাঠামো পুনর্মূল্যায়নে একটি কমিটি গঠন করেছে। কমিটি গত বৃহস্পতিবার প্রথম সভাও করেছে।
পোশাক শ্রমিকদের জন্য গত বছর ঘোষিত নতুন মজুরি কাঠামোর সাতটি গ্রেডের মধ্যে যে তিনটি গ্রেড নিয়ে আপত্তি এসেছে, সেগুলো পর্যালোচনা করে সমন্বয়ের আশ্বাস দিয়েছেন কমিটির প্রধান শ্রম সচিব আফরোজা খান।
শ্রমিকদের শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, কোনো শ্রমিকের বেতনই কমবে না। মজুরি কাঠামোর অসঙ্গতি দূর করার আশ্বাস সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হলেও পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ থেমে নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *