মাদার তেরেসা সম্মাননা পাচ্ছেন ইসমত আরা

  • দেশজ ও সুষ্ঠু ধারা সংস্কৃতি বিকাশের লক্ষ্যে ‘জয় বাংলা সাংস্কৃতিক পরিষদ’ নিরলস সাফল্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সংগঠনটি অর্জন করেছে নানা অভিজ্ঞতা ও সুনাম। সংগঠনটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে অদ্যবধি দেশের স্বনামধন্য ব্যক্তি, কবি-সাহিত্যিক, সাংবাদিক, লেখক, গবেষক, দেশের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, এবং খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পীদের সংবর্ধনা দিয়ে তাদের কাজের প্রতি অনুপ্রেরণা যোগাতে কাজ করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর জয় বাংলা সাংস্কৃতিক পরিষদের সংগঠনের উপদেষ্টা মন্ডলী ও জুরি বোর্ড কর্তৃক সমাজ সেবা ও মানব কল্যাণে বিশেষ অবদানের জন্য মাদার তেরেসা সম্মাননা ২০১৯ এ গুণীজন হিসেবে নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত আরা মনোনীত হয়েছেন।

ইসমত আরা দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ এর সাথে সম্পৃক্ত আছেন। বর্তমানে তিনি নড়াইল জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সফলতার সাথে নারীর দক্ষতা ও স্বনির্ভর হিসেবে পেয়েছেন সফল নারী উদ্যোক্তা হিসাবে জাতীয় স্বর্ণ পদক, জয়িতা পুরস্কার, হয়েছেন জেলা পর্যায়ে সফল জননী, পেয়েছেন জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্তৃক পুরস্কার।
হস্ত শিল্প ও কুটির শিল্পের মাধ্যমে গড়ে তুলেছেন বাংলাদেশ উন্নয়নের লড়াই (বাউল) এবং পল্লী জননী মহিলা সমিতি নামে এনজিও।

অসহায় মহিলাদের প্রশিক্ষণ প্রদান এবং আর্থিকভাবে লাভবানের সুযোগ ও কর্মক্ষেত্রে কর্মকাণ্ডের সুযোগ সৃষ্টি করেছেন ইসমত আরা।

স্বামী হারিয়ে তার একমাত্র সন্তানকে নিয়ে কর্মযজ্ঞ পরিচালনা করে যাচ্ছেন তিনি। সন্তানকে গড়ে তুলেছেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে। বর্তমানে ইসমত আরা’র একমাত্র সন্তান নাইমুজ ইনাম নাইম বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে সরকারি চাকুরি করছেন, তার সুযোগ্য সন্তানও পেয়েছেন জাতীয় পুরস্কার, পেয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড। ৯০ টা দেশের মধ্য থেকে তিনি বাংলাদেশের হয়ে ইন্টারন্যাশনাল কান্ট্রি কনসেপ্ট নোট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।

২০০৯ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অল্প কিছু ভোটের ব্যবধানে হেরে গিয়েছিলেন ইসমত আরা । পরবর্তীতে ২০১৪ সালে নড়াইল জেলার তৃণমূল আওয়ামী লীগ থেকে নমিনেশন পেয়ে মাত্র ১৬ ভোটের ব্যবধানে তিনি হেরে গিয়েছিলেন। তারপরও তিনি হাল ছাড়েননি ২০১৯ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি আবার জয়ের আশা নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন। ২০১৪ সালের ১৬ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়ে ২০১৯ নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সালে তিনি ১২ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন তিনি। দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক দক্ষতা, সৎ এবং নিষ্ঠার সাথে থাকার কারণে জনগণ তাকে এই বিজয় অর্জনে সহযোগিতা করেছে। দুবার হারের পরেও তিনি থেমে থাকেনি। জয়ের আশা নিয়ে মাঠে নেমেছেন। লড়েছেন প্রতিপক্ষদের সাথে। দীর্ঘ ১০ বছর পরে ইসমত আরা নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। রেখেছেন ধৈর্যের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন অনেক মহিলাদের।

উল্লেখ্য, জয় বাংলা সাংস্কৃতিক পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত মাদার তেরেসা সম্মাননা ২০১৯ অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মোঃ মোজাফফর হোসেন পল্টু উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বীরমুক্তিযোদ্ধা আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি মাননীয় মন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়। এছাড়াও প্রধান আলোচক হিসেবে জনাব ফরিদ হোসেন এমপি মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় উপস্থিত থেকে সমাজ সেবা ও মানব কল্যাণে বিশেষ অবদানের জন্য মাদার তেরেসা সম্মাননা পদক ২০১৯ তুলে দিবেন ইসমত আরাকে।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নড়াইল জেলার সার্বিক উন্নয়ন করার লক্ষ্যে এবং নড়াইল সদর উপজেলা কে সুন্দর আধুনিক একটি উপজেলা করতে নড়াইল সদর উপজেলা বাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন মাদার তেরেসা সম্মাননায় মনোনীত নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত আরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *